MD. JANNATUL FARDOUS - (Mymensingh)
প্রকাশ ১৯/০৩/২০২২ ০৪:৩০পি এম

মুক্তাগাছার ১৮ হাজার পরিবার পাবে টিসিবির পণ্য

মুক্তাগাছার ১৮ হাজার পরিবার পাবে টিসিবির পণ্য
ad image
পবিত্র মাহে রমজানে সরকার প্রদত্ত বিশেষ টিসিবি পন্য ক্রয়ের সুবিধা পাবে মুক্তাগাছার উপজেলার ১৮ হাজার ১৫৩ পরিবার। ২০ মার্চ রবিবার থেকে উপজেলার একটি পৌরসভা ও ১১টি ইউনিয়নের ৩৩টি পয়েন্টে এ পন্য বিক্রয় করা হবে। ১৯ মার্চ শনিবার সকাল ১০টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে সাংবাদিকদের নিয়ে এক সভায় এ তথ্য জানানো হয়।

এ সময় মুক্তাগাছা প্রেসক্লাবের সভাপতি এফএমএ সালাম সহ সকল সাংবাদিক উপস্থিত ছিল । সভায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল্লাহ আল- মনসুর বিশেষ টিসিবি পন্য বিপণনের সার্বিক বিষয়ে অবহিত করেন। তিনি জানান, সরকার স্বল্প আয়ের মানুষদের কমমূল্যে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য ক্রয়ের সুবিধা প্রদানের নিমিত্তে বিশেষ টিসিবির ব্যবস্থা করেছে। সেজন্য পৌর সভা ও ইউনিয়ন ভিত্তিক সুবিধাভোগী তালিকা প্রণয়ন করে তাদেরকে পন্য ক্রয়ের জন্য ইতোমধ্যেই কার্ড সরবরাহ করা হয়েছে।

কর্মসূচির আওতায় ২০ মার্চ থেকে ২৯ মার্চ পর্যন্ত ১০জন ডিলারের মাধ্যমে প্রথম ধাপের পন্য বিতরণ করা হবে। এতে প্রথম দিন পৌরসভার নতুন বাজার, আটানী বাজার, ও মুন সিনেমার সামনে থেকে ২ হাজার ১১০জনকে পন্য সরবরাহ করা হবে। এছাড়া ২১ মার্চ দুল্লা ইউনিয়নে ১হাজার ৬৫৫জন, ২২ মার্চ বড়গ্রাম ইউনিয়নে ১হাজার ৫৩৮জন ও তারাটী ইউনিয়নে ১হাজার ৪১৯জন, ২৩ মার্চ কুমারগাতা ইউনিয়নে ১ হাজার ৬৭৮জন, ২৪মার্চ বাশাটী ইউনিয়নে ১ হাজার ৪৬৮জন, ২৫ মার্চ মানকোন ইউনিয়নে ১হাজার ৫৮৪জন, ২৬ মার্চ ঘোগা ইউনিয়নে ১হাজার ৯১৫জন, ২৭ মার্চ দাওগাঁও ইউনিয়নে ১ হাজার ৬৮৬ জন, ২৮ মার্চ কাশিমপুর ইউনিয়নে ১ হাজার ৬২৯ জন ও ২৯ মার্চ খেরুয়াজানী ইউনিয়নে ১হাজার ৪৭১জন মিলে মোট ১৮ হাজার ১৫৩জন কার্ড ধারী সুবিধা ভোগির মধ্যে প্রথম ধাপের পন্য বিক্রয় করা হবে।

প্যাকেজের আওতায় প্রত্যেক কার্ড ধারী প্রথম ধাপে ৪৬০ টাকার বিনিময়ে ২কেজি ডাল, ২ কেজি চিনি ও ২ লিটার ভোজ্য তেল ক্রয় করতে পারবেন। এ ব্যাপারে সকল ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে বলে সভায় জানান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ