Md.Shahidul Islam - (Bandarban)
প্রকাশ ০৯/০৩/২০২২ ১২:২৫পি এম

নবরূপে এপ্রিল মাসেই চালু হবে নীল "দিগন্ত পর্যটন স্পট"

নবরূপে এপ্রিল মাসেই চালু হবে নীল "দিগন্ত পর্যটন স্পট"
ad image
পাহাড় কন্যা ক্ষ্যাত পর্যটন নগরী বান্দরবান,পর্যটন শীল্পের অপার সম্ভাবনা ময় এই নগরীতে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আশা মানুষের পদচারণায় মুখর থাকে বছর জুড়েই। ভ্রমন পিপাসু পর্যটকরা যেনো প্রকৃতির সাথে আরো নিবিড় সম্পর্ক গড়ে তুলতে পারে সেই লক্ষ্যে জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় গড়ে উঠেছে দৃষ্টি নন্দন পর্যটন স্পট।

"নীল দিগন্ত" পর্যটন কেন্দ্র,বান্দরবান জেলা সদর থেকে প্রায় ৫২ কিলোমিটার দুরে অবস্থিত নীলগিরি পর্যটন কেন্দ্র তার ঠিক ৫ কিলোমিটার দুরে অবস্থিত "নীল দিগন্ত পর্যটন কেন্দ্র"। থানছি উপজেলার জীবন নগর এলাকায় অবস্থিত এই পর্যটন কেন্দ্রের বর্তমান অবস্থা খুবই নাজুক,সঠিক রক্ষণাবেক্ষণের অভাবেই মুলত এমনটা হয়েছে বলে বন্তব্য করেছেন বান্দরবানে ঘুরতে আশা পর্যটকরা।

ঢাকা থেকে বেড়াতে আশা রেজাউল করিম স্বপরিবারে বেড়াতে এসেছেন বান্দরবানে প্রতিবেদক তথ্য সংগ্রহ কালে তিনি আক্ষেপের সুরে বলেন আমরা নিলগীরি,নিলাচল সহ কয়েকটি পর্যটন স্পট দেখেছি অসম্ভব সুন্দর পাহাড়ের বুকে সুভ্র মেঘের মিতালি দেখতেই মুলত আমাদের এখানে আশা।

লোকমুখে নিল দিগন্ত নামক বান্দরবানে পর্যটন স্পটের কথা শুনে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য অবলোকন করার জন্য জেলা সদর হতে অনেক ভোরেই রওনা দিয়েছি " নিল দিগন্ত" পর্যটন স্পটটি দেখার আশায় কিন্তু এখানে এসে দেখলাম গেইটে তালা ঝোলানো তাই আর ভেতরে যাওয়া হয় নি,বাহির হতে নিল দিগন্ত পর্যটন স্পটের ভিউ পয়েন্ট গুলো আমাদের খুবই আকৃষ্ট করেছে।কতৃপক্ষ যথাযথ ব্যাবস্থা গ্রহন করলে এটাও হয়ে উঠতে পারে জনপ্রিয় একটি পর্যটন স্পট।

সরজমিনে তথ্য সংগ্রহ কালে দেখা যায় পর্যটন স্পটের প্রধান ফটকে লাগানো তালা,পর্যটন স্পষ্টের ভিতরে পর্যটকদের আকৃষ্ট করার জন্য নির্মিত দৃস্টি নন্দন কটেজে গুলো বন্ধ,প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করার জন্য নির্মিত বিভিন্ন ভিউ পয়েন্ট অপরিষ্কার, দর্শনার্থীদের জন্য নির্মিত টয়লেট গুলোও নোংরা,এবং পানি সরবরাহের কোন ব্যাবস্থাপনা নেই।

ঘন্টাখানেক অপেক্ষা করার পরেও রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে কে আছেন তার দেখা মিল্ল না। প্রসংগত ২০১৭ সালের ১৫ই জুলাই জেলা প্রশাসন,উপজেলা প্রশাসন ও বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশনের সহায়তায় প্রকৃতি প্রেমীদের বিনোদনের জন্য উদ্ভোধন করা হয় নতুন এই পর্যটন কেন্দ্রটি।

পর্যটন স্পটের এই দুরবস্থার কারন জানতে ফোনে এ ব্যাপারে থানছি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আতাউল গনি ওসমানীর সাথে কথা বল্লে তিনি বলেন দীর্ঘদিন করোনার ধকল কাটিয়ে সাধারণ মানুষ খানিকটা সতেজতার আশায় ভীড় জমায় এই পার্বত্য নগরী বান্দরবানে তাদের বিনোদনের জন্যই জেলা প্রশাসক বান্দরবান পর্যটন শীল্পের বিকাশে নানা পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে তারই ধারাবাহিকতায় থানছি উপজেলা প্রশাসন কাজ করছে। "নীল দিগন্ত" পর্যটন স্পটের সার্বিক বিষয়ে আমরা ইতিমধ্যে আপনাদের মাধ্যমে অবগত হওয়ার পর বিষয়টি আরো গুরুত্ব সহকারে গ্রহন করেছি।

তিনি জানান "নীল নিগন্ত" পর্যটন স্পটের কটেজ ও বাতরুমের সমস্যাগুলো আমরা ইতিমধ্যে ঠিক করার ব্যবস্থা গ্রহন করেছি,বৈদ্যুতিক লাইনের সংযোগের বিষয়ে বলিপাড়া বিদুৎ বিভাগের সাথে আমাদের কথা হয়েছে পর্যটন স্পটে সার্বক্ষনিক পর্যাপ্ত বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিতে একটি ট্রান্সফরমার স্থাপনের ব্যাপারে তারা পরামর্শ দিয়েছে।

বলিপাড়া হতে ৭-৮ কিলোমিটার বৈদ্যুতিক সংযোগের লাইনে বিদ্যুৎ সরবরাহ চালুর ব্যাপারে, কর্তৃপক্ষের সাথে কথা হয়েছে এবং এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক বান্দরবান সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন,তিনি আরো বলেন পর্যটন কেন্দ্রে পানি সরবরাহের ব্যাবস্থাপনার বিষয়টি জটিল হলেও তা সমাধানে ব্যাবস্থা গ্রহন করেছি।

পাহাড়ের ডালু প্রায় ৬ কিলোমিটার নিচে পানির উৎস হতে মটরের মাধ্যমে পর্যটন কেন্দ্রে পানি সরবরাহ করার ব্যাবস্থা গ্রহন করেছি এ ব্যপারে জেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের সাথে আলোচনা হয়েছে খুব দ্রুততম সময়ে এই কাজটিও বাস্তবায়ন হবে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার আতাউল গনি ওসমানী আরো জানান চলতি মাসের শেষের দিকে সম্ভব না হলে আগামী এপ্রিল মাসের ১০ তারিখের মধ্যে পুনরায় দর্শনার্থীদের জন্য "নীল দিগন্ত" পর্যটন স্পট টি খুলে দেয়ার ব্যাবস্থা করা হবে।

সুত্রে জানানো হয় পর্যটন স্পট টি পরিদর্শনের জন্য আগত প্রকৃতিপ্রেমীরা ২০ টাকার টিকেট কেটে উপভোগ করতে পারবেন প্রকৃতির অসম্ভব সব দৃশ্য সাথে প্রিয়জনের সাথে ভিউ পয়েন্টে আড্ডা দিয়ে চা আর কফি খেতেখেতে উপবোগ করবেন "নিল দিগন্ত" পর্যটন স্পটের মনোরম নয়নাভিরাম সৌন্দর্য।

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ