Muslim Mia
প্রকাশ ২৭/০২/২০২২ ০৪:০১পি এম

আলগীর চর গ্রামের দুলাল মিয়া গং বাহুশক্তির প্রভাব খাঁটিয়ে মোসাঃ মোসলেমা বেগমের জমি দখলের পায়ঁতারা

আলগীর চর গ্রামের দুলাল মিয়া গং বাহুশক্তির প্রভাব খাঁটিয়ে মোসাঃ মোসলেমা বেগমের জমি দখলের পায়ঁতারা
ad image
সোনারগাঁ উপজেলার বারদী ইউনিয়নের আলগীর চর মৌজায় এস এ ৯০ নং খতিয়ানের অন্তর্ভূক্ত এস এ ৩০৪ নং দাগের মূলে ৫২ শতাংশ মধ্যে ১৫ শতাংশ নাল জমি গত ০৪-০৫-১৯৬৬ ইং তারিখে যাহার দলিল ৩২৩৪ নং তমিজউদ্দিন ওরফে দরবার মিয়া, পিং আলাপদী ক্রয় সূত্রে মালিক বিদ্যমান থাকিয়া আর এস খতিয়ান ১৩৩নং, আর এস দাগ ২৯৬ নং নিজ নামে রেকর্ডীয় অন্তর্ভূক্ত হয়।

তমিজউদ্দিন জীবদ্দাশায় তিন পূত্র ও দুই কন্যাকে নিজ জমিতে বিত্ত ভোগী ওয়ারিশ রাখিয়া মৃত্যু বরণ করেন। তমিজউদ্দিন ওরফে দরবার ঔরশজাত সন্তান মো আলী হোসেন জমির মালিকানা সূত্রে উপরোক্ত দাগ খতিয়ানের মূলে তাহার সহধর্মনীয় মোসাঃ মোসলেমা বেগম, পিং-মৃত জয়নাল আবেদীন শিকদার, সাং- গোয়াল পাড়া কে 4 শতাংশ হেবা ঘোষনা পত্র দলিল সম্প্রদান করে দেন।

উক্ত দলিল মূলে নামজারি জন্য সহকারি ভূমি কমিশনার নিকট আবেদন করিলে তিনি আমার আবেদন মঞ্জুর করে নামজারি পর্চা প্রদান করেন। উক্ত বিষয় দুলাল মিয়া, পিং- মৃত আক্কাছ আলী কে মোসাঃ মোসলেমা বেগম জানালে সে বলে আমি এই জমি বন্ধক দিয়ে রাখছি। কাগজ পত্র ঠিক থাকিলে জায়গা পাবি। তখন কাগজ পত্র গুলি তাকে দেখাই, তখন সে বলে এক মাসের মধ্যে আমার জায়গা ছেড়ে দিবে বলে স্বীকার করে।

উক্ত বিষয়টি ন্যায় বিচারের জন্য আলগীর চর গ্রামের ৩ নং ওয়ার্ডের মেম্বার কে জানালে তিনি বলেন, আপনার কাগজ পত্র দেখেছি আপনার কাগজ পত্র ঠিক আছে, আর যদি প্রাপ্য জায়গা বুঝিয়ে না দিলে আপনি বারদী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান অফিসে গ্রাম্য আদালতে বিচার দাখিল করেন।

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ