সম্পাদনাঃ শামীম বখতিয়ার - (Dhaka)
প্রকাশ ২৫/০১/২০২২ ১২:৩৬পি এম

Open column: আত্মজ্ঞান

Open column: আত্মজ্ঞান
ad image
আত্ম-জ্ঞান, আরও গুরুত্বপূর্ণভাবে, আমাদের সভ্যতার জন্য অপরিহার্য। অথবা আত্ম-জ্ঞান আমাদের সভ্যতার চেয়ে বেশি সমালোচনামূলক। আমরা আমাদের আত্মসচেতনতা এবং মানুষ এবং পশুর বিবেক সচেতন হলে এই পথ অতিক্রম করব।

ছোট হোক বা বড় হোক জীবন অর্থবহ। এটা ভুলে যাওয়া উচিত নয় যে আপনি একটি পিঁপড়াকে রাস্তায় ফেলে মেরে ফেলতে পারেন, তবে আপনি যদি মনে করেন যে একটি প্রাণী আপনার পথে যা দেখছেন তার চেয়ে হাজার গুণ বেশি গুরুত্বপূর্ণ বা যদি ভাবেন এটি কোন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নয় অথবা যদি আপনি ভাবেন যে এই প্রাণীটি আপনাকে তার পায়ের নীচে পিষে ফেলবে কিংবা ফেলতে পারে।

মানব সভ্যতার ইতিহাস থেকে যদি আমরা মনে করি যে আমরা যদি সমস্ত জীবকে বেঁচে থাকার অধিকার দেই বা তাদের সংরক্ষণের সমস্ত দায়িত্ব না নিতে পারি তবে এর কারণ হল আমরাই একমাত্র সভ্যতা যারা তার বিবেককে সঠিকভাবে ব্যবহার করতে পারি তবে বিষয়টা হবে অত্যন্ত লোহমর্ষক।

তারপর এটা কেমন হবে তা ব্যাখ্যা করার জন্য অপেক্ষা করতে পারছি না। সৃষ্টির সূচনালগ্ন থেকেই আমাদের পূর্বপুরুষরা পাথরের কঠিন পথ পাড়ি দিয়ে আমাদের বিশ্বজীবন ভবিষ্যতের দিকে যেভাবে জটিল ও চ্যালেঞ্জিং পথ পাড়ি দিয়েছেন সে সম্পর্কে একমাত্র তাহারাই অবগত ছিলেন।

জীবনটা কতটা কঠিন, কতটা জটিল, খাদ্য সংগ্রহ করা কতটা কষ্টকর ভয়ঙ্কর। প্রকৃতির যে 6 টি রং আমাদের এই দেশে রয়েছে এমন রং হয়তো তারা নাও পেতে পারে এর চেয়েও কঠিন রং তারা দেখেছেন এবং সেই উষ্ণ ও শীতল গরম প্রকৃতির শক্তির কাছে তারা যখন কোনভাবেই হেরে যান নি তাহলে আমরা এ সময়ে এসে কেন হেরে যাবো তাহলে আমরা এই সময়ে এসে কেন বুঝবোনা।

আমরা যে আজ তাদের জীবনের ইতিহাস খুঁজে বের করার জন্য এত চেষ্টা করছি তা তাদের কাছে প্রমাণ করে যে আমরা পৃথিবীতে যেভাবে ছিলাম তার একটি অংশ যদি আমরা সময়ের সাথে সাথে ফিরে যাই, তাহলে সেই মানব জীবনের অস্তিত্ব কতটা করুণ হবে যদি তারা পারে। অতীত বুঝতে ইতিহাস অতীত সভ্যতা থেকে আজ আমরা কত দূরে।

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ