Sajib Sikdar
প্রকাশ ২৪/০১/২০২২ ০৯:৩৫এ এম

নিয়মের মধ্যে থাকা

নিয়মের মধ্যে থাকা
ad image
সাগরের দিকে তাকালে আমরা দেখি সাগর কখনো কখনো জীবিত ব্যক্তিকে প্রবল ঢেউয়ে ডুবিয়ে দেয় বা মেরে ফেলে। আবার সেই সাগরই মৃতদেহকে ভাসিয়ে রাখে। যে সাগরে জীবিত প্রাণ ঢেউয়ের তোড়ে ডুবে যায় সেই সাগরের ঢেউয়েই মৃত দেহ তীরে এসে পড়ে। এইরকম রহস্য কি খেয়াল করি আমরা? জীবিত মানুষ যিনি বাঁচতে চায়, কখনো কখনো সাগর তাকে ডুবিয়ে মারে। আর মৃত ব্যক্তি যার বাঁচার কোনো আকাঙ্ক্ষা নেই, তাকে ভাসিয়ে পার করে দেয়।

বিষয়টাকে আমরা এভাবে যদি ভাবি ''জীবিত ব্যক্তি সাগরের তলায় চলে যায় কারন সে প্রকৃতি বা সাগরের বিরুদ্ধে যেতে আপ্রাণ চেষ্টা করে'' তাই সাগর তাকে সহায়তা করেনা। আর মৃত ব্যক্তি ''আত্মসমর্পন করে সাগরের অস্তিত্বের কাছে'' মৃত ব্যক্তির কোনো আশা আকাঙ্ক্ষা নেই। এর জন্য সাগর তাকে ভাসায়।

মূলত নিয়মের বাইরে যেতে নেই, যা হচ্ছে, যা হবে, সবকিছু মাথা পেতে যে নিতে পারে সে এই ক্রিটিক্যাল জীবন সাগরে ভেসে যায়। হোক সেটা আমাদের কষ্ট কিংবা সুখ, যা হচ্ছে সবই ভোগ করে নিন, এখানেই আত্মসমর্পন করুন।

এক জীবনে এই পৃথিবী কারো জন্য কারাগার আবার সেই জীবনেই পৃথিবীটা কারো জন্য মুক্ত আকাশ। এটা মেনে নিলেই ভালো। যখন যেটা হবে সেটাই জীবন।

এর বাইরে ভাবতে গেলে কিছু করতে গেলে জীবন বড় কঠিন হয়ে যায়। বেঁচে থাকা জীবন হয়ে যায় অসহনীয় যন্ত্রণার।

প্রকৃতি আমাদের জন্য আয়োজন করেছে ভয়াবহ সময়ের। প্রকৃতি চায় আমরা সতর্ক থাকি, নিয়মের মধ্যে থাকি।
আমরা যদি এখন তার বিরুদ্ধাচরণ করি তাহলে নিশ্চিত থাকেন আমাদের ধ্বংস করে দেবে প্রকৃতি। আসুন আমরা তার কাছে আত্মসমর্পণ করি। নিয়মের মধ্যে থাকি।

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ