Md.Shahidul Islam - (Bandarban)
প্রকাশ ১৯/০১/২০২২ ১২:৩৭পি এম

আলীকদমে সংবাদকর্মীকে ফাঁসাতে গিয়ে ফেসে গেলেন শাহীন!

আলীকদমে সংবাদকর্মীকে ফাঁসাতে গিয়ে ফেসে গেলেন শাহীন!
ad image
বান্দরবানের আলীকদম উপজেলার মাতামুহুরি সংরক্ষিত বনাঞ্চলের অবৈধভাবে পাথর উত্তোলনের তথ্য সংগ্রহকে কেন্দ্র করে সাংবাদিক হাসান মাহমুদকে ফাসানোর তথ্য পাওয়া গিয়েছে।

পাথর উত্তোলনের তথ্য প্রচারের জের ধরে সংবাদকর্মীদের দমন করতে সংবাদকর্মী হাসান মাহমুদের দোকানে আগ্নেয়াস্ত্র ও ইয়াবা রেখে সুকৌশলে সংবাদ দেওয়া হয় র‍্যাবকে।

এই তথ্যের ভিত্তিতে দোকান তল্লাশি করে ১টি দেশীয় তৈরী এলজি আগ্নেয়াস্ত্র ও ১৮ শত ৪০ পিস উদ্ধার করে র‍্যাব।

পরে র‍্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে বেরিয়ে আসে আসল ঘটনা। অস্ত্র ও ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানোর প্রকৃত রহস্য উদঘাটন ও এই ঘটনা নেপথ্যনায়ক শাহীন সরোয়ার কে আটক করে র‌্যাব-১৫।

এই ঘটনায় পলাতক অন্যান্ন আসামিরা হলেন, আলীকদম খুইল্যা মিয়া পাড়ার বাসিন্দা আব্দুর রহিমের ছেলে নজরুল ইসলাম, মোঃ ফরিদ ও মোঃ শাহীন।

আলীকদম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাছির উদ্দীন সরকার বলেন, আটককৃত আসামিকে আদালতে নেওয়া হয়েছে এবং অন্য আসামীদের আটকের চেষ্টা চলছে, তাদের বিরুদ্ধে অস্ত্র ও মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হয়েছে।

প্রসংগত গত ২৫ ডিসেম্বর মাতামুহুরি রিজার্ভ অঞ্চলের শীল ঝিরিতে অবৈধ ভাবে পাথর উত্তোলন করা হচ্ছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে অবৈধ পাথর উত্তোলনের তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে পাথর উত্তোলন কারীদের হামলার শিকার হন সংবাদকর্মীরা।

হামলাকারীরা ছিনিয়ে নেয় সংবাদ সংগ্রহের কাজে ব্যাবহৃত মোবাইল, ক্যামেরাসহ অনেক কিছু এবং দেওয়া হয়েছিল হত্যার হুমকিও। সেই সময় এই চক্রটি সংবাদকর্মীদের ইয়াবা দিয়ে একটি সরকারি বাহিনীর হাতে তুলে দেওয়ার চেষ্টা করলে কৌশলে সংবাদকর্মীরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।

পরে নজরুল ইসলাম, মোঃশাহীন ও নজরুল ইসলামের ম্যানেজার শাহীন সরোয়ারসহ হামলায় জড়িত অজ্ঞাত ৫০ জনকে আসামি করে মামলা করে সাংবাদিকরা।

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ