Abdul majid
প্রকাশ ১৯/০১/২০২২ ১১:৫৯এ এম

United Nations: জাতিসংঘে ভারতের অভিযোগ পাকিস্তানে রাজার হালে থাকে সন্ত্রাসীরা

United Nations: জাতিসংঘে ভারতের অভিযোগ পাকিস্তানে রাজার হালে থাকে সন্ত্রাসীরা
ad image
সন্ত্রাসের মোকাবিলা করতে হলে শুধু সন্ত্রাসবাদী সংগঠনের উপর নজর রাখলেই চলবে না। কিছু কিছু সন্ত্রাসী কার্যক্রমে অন্য দেশেরও মদদ থাকে। সে দিকেও নজর দেয়া উচিত। এমনটা জানিয়েছে জাতিসংঘে ভারতের স্থায়ী দূত টি এস ত্রিমূর্তি।

জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক সন্ত্রাস মোকাবিলা ফোরামে এ কথা বলেন তিনি।

আন্তর্জাতিক সন্ত্রাস মোকাবিলা প্রসঙ্গে ভারতে জাতিসংঘের স্থায়ী দূত টি এস ত্রিমূর্তি বলেন, আমরা দেখেছি ১৯৯৩ সালের মুম্বাই বিস্ফোরণের অপরাধীদের অন্য দেশে শুধু আশ্রয়ই দেয়া হয়নি, তাদের যত্ন করে রাজার হালে রাখা হয়েছে। পাকিস্তানের নাম না করেই ত্রিমূর্তি জানান, জাতিসংঘের উচিত এই ধরনের বিষয় বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে দেখা। কারণ সন্ত্রাসের মোকাবিলা করতে হলে শুধু সন্ত্রাস ছড়ানো সংগঠনগুলির উপরই নজর রাখলে চলবে না। তাদের মদদদাতা রাষ্ট্রের ভূমিকাও চিহ্নিত করতে হবে। তাদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা নিতে হবে। তবেই প্রকৃত অর্থে সন্ত্রাস দমন সম্ভব হবে।

সন্ত্রাস দমন নিয়ে কাজ করায় জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের প্রশংসা করে ত্রিমূর্তি বলেন, কিছু কিছু ব্যাপারে পরিষদের সিদ্ধান্ত নেয়া এবং তা বলবৎ করার প্রক্রিয়ায় এখনও কিছু কমতি রয়ে গিয়েছে।

জাতিসংঘে ভারত অবশ্য সরাসরি পাকিস্তানের নাম বলেনি। তবে মুম্বাই বিস্ফোরণের নেপথ্য কারিগর দাউদ ইব্রাহিমের দিকে ইঙ্গিত করেছে। আর দাউদ যে পাকিস্তানেই রয়েছে তা আগেই স্বীকার করেছে পাকিস্তান সরকার। ২০২০ সালের আগস্টে পাকিস্তান সরকার যখন দেশটির মাটিতে বেড়ে ওঠা ৮৮টি সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করে, তখন তার মধ্যে ভারতের মোস্ট ওয়ান্টেড দাউদেরও নাম ছিল।

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ