Md Jaber Ahmad BD - (Dhaka)
প্রকাশ ১৫/০১/২০২২ ০৪:২৫এ এম

বাসর রাতের সেই ঘটনাটা!!

বাসর রাতের সেই ঘটনাটা!!
ad image
বাসর রাতের সেই ঘটনাটা-!!

অনন্য-!!
অতুলনীয়-!!
অবিস্মরণীয়-!!

বাসর রাতে আহলিয়াকে সারপ্রাইজ করতে তার হাতে একটা খাম দিয়ে বললাম- "এখানে একটা 'মুদারাবা' ফরম আছে। তোমার নামেই পূরণ করা। তুমি যাস্ট সইটা করে দিবে। প্রতি মাসে আমার বেতন থেকে এক হাজার করে জমা হবে তোমার একাউন্টে। ১২ বছর পর তা ফিরে আসবে দ্বিগুন লাভ নিয়ে।"

ভেবেছিলাম আহলিয়া খুব খুশি হবে। ধন্যবাদ জানাবে। কিন্তু না। তার চেহারা দেখে এমন কিছুই মনে হল না। একটু পর বলল, বারো বছর পর আমাদের জমানো ১লাখ ৪৪ হাজার টাকা ২লাখ ৮৮+ হাজার হয়ে যাবে। তাই তো?
: হুম!

: আচ্ছা আমি একটা ব্যাংকের ব্যাপারে জানি। যেখানে এরচেয়েও বেশি মুনাফা দেয়।

: কোন ব্যাংক?
সে উঠে গিয়ে কুর'আন শরীফ নিয়ে এলো। সূরা বাকারার ২৬১ নং আয়াতটি বের করে বলল তরজমাটি পড়ুন।

: আমি পড়তে লাগলামঃ

مَثَلُ الَّذِیۡنَ یُنۡفِقُوۡنَ اَمۡوَالَہُمۡ فِیۡ سَبِیۡلِ اللّٰہِ کَمَثَلِ حَبَّۃٍ اَنۡۢبَتَتۡ سَبۡعَ سَنَابِلَ فِیۡ کُلِّ سُنۡۢبُلَۃٍ مِّائَۃُ حَبَّۃٍ ؕ وَ اللّٰہُ یُضٰعِفُ لِمَنۡ یَّشَآءُ ؕ وَ اللّٰہُ وَاسِعٌ عَلِیۡمٌ ﴿۲۶۱﴾

"যারা আল্লাহর পথে তাদের সম্পদ ব্যয় করে, তাদের উপমা একটি বীজের মত, যে বীজ উৎপন্ন করল সাতটি শীষ, প্রতিটি শীষে রয়েছে একশ’ দানা। ( অর্থাৎ ৭×১০০=৭০০)। (তবে) আল্লাহ যাকে চান তার জন্য (আরও) বাড়িয়ে দেন। আর আল্লাহ প্রাচুর্যময়, সর্বজ্ঞ।"

এরপর সে আয়াতের ব্যাখ্যা করতে থাকল। বললঃ
"আল্লাহ তা'আলা দানকে চাষের সাথে তুলনা করেছেন। এতে সুগভীর কিছু শিক্ষা রয়েছে। যেমন ধরুন, ভালো চাষের জন্য, বেশি ফলনের জন্য তিনটা জিনিস লাগে।
১। একনিষ্ঠ চাষী।
২। ভালো জমি।
৩। ভালো বীজ।

অনুরূপ দানে ৭০০ গুন সওয়াব পেতে তিনটা জিনিস লাগবে।
১। দাতার বিশুদ্ধ নিয়ত। (অর্থাৎ একনিষ্ঠ চাষী)
২। দীনি খাত। (অর্থাৎ ভালো জমি)
৩। হালাল সম্পদ। (অর্থাৎ ভালো বীজ)

কেউ যদি দানের ক্ষেত্রে এই তিনটি দিক খেয়াল রাখে, তাহলে তার দান আখেরাতে ৭০০ গুন তো হবেই। বরং আল্লাহ আয়াতের শেষ দিকে বলেছেনঃ

وَ اللّٰہُ یُضٰعِفُ لِمَنۡ یَّشَآءُ ؕ وَ اللّٰہُ وَاسِعٌ عَلِیۡمٌ ﴿۲۶۱﴾

"আর আল্লাহ যাকে চান তার জন্য বাড়িয়ে দেন। আর আল্লাহ প্রাচুর্যময়, সর্বজ্ঞ।"

বৌ আমার হাতটা চেপে ধরে বলল, আপনি যে টাকাটা আমার নামে ব্যাংকে রাখতে চেয়েছিলেন, সেটা 'আমাদের' নামে আল্লাহর ব্যাংকে রেখে দিন না! একটা দীনি প্রতিষ্ঠানের সাথে চুক্তি করুন, প্রতিমাসে এই পরিমাণ অংক তাতে দান করবেন। ইনশাআল্লাহ আখেরাতে তা অন্তত ৭০০ গুন হয়ে ফিরে আসবে, যেদিন কোনো বন্ধু, কোনো অর্থ, কোনো আত্মীয়ই কাজে আসবে না! সেদিন এই দান কাজে আসবে।

আমি বোবা হয়ে গেলাম। চোখ দুইটা ঝাপসা। সেই থেকে আজঅব্দি মাসিকদানে একটা প্রতিষ্ঠানের সাথে যুক্ত। আলহামদুলিল্লাহ। কোনো মাসে বিলম্ব হলে 'উনি' স্মরণ করিয়ে দেন।

[ আয়াতের ব্যাখ্যাটা তাফসীরে কুরতবীতে হুবহু এভাবেই এসেছে ]

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ