Muslim Mia
প্রকাশ ০২/০১/২০২২ ০৮:৩০এ এম

UP election: নির্বাচনী সহিংসতায় যুবক খুন

UP election: নির্বাচনী সহিংসতায় যুবক খুন
ad image
ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে (ইউপি) কেন্দ্র করে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সমর্থককে হত্যা করে লাশ রাস্তার পাশে ফেলে রাখার অভিযোগ উঠেছে সদ্য জয়ী ইউপি সদস্য দেলোয়ার হোসেন ও তার সমর্থকদের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় দেলোয়ার হোসেনকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে গ্রামবাসী।

ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল শুক্রবার রাতে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার সনমান্দী ইউনিয়নের সাজালেরকান্দি গ্রামে। নিহতের নাম নয়ন মিয়া (৩০)। তিনি উপজেলার সনমান্দী ইউনিয়নের মারুবদী গ্রামের আলম মিয়ার ছেলে।

নয়ন মিয়ার স্ত্রী মানছুরা আক্তার জানান, গত ২৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত উপজেলার সনমান্দী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সদস্য প্রার্থী ছিলেন দেলোয়ার হোসেন ও ফিরোজ মিয়া। তার স্বামী ফিরোজ মিয়ার পক্ষে নির্বাচন করেন। এজন্য নির্বাচনের আগেই দেলোয়ার হোসেন ও তার সমর্থকরা বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে আসছে। নির্বাচনে দেলোয়ার হোসেন জয়ী হন।

এরপর এক মাস পেরিয়ে যায়। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় বাসা থেকে বের হয়ে আর ফেরেনি নয়ন। রাতভর মুঠোফোনে যোগাযোগ করেও আর খোঁজ পাওয়া যায়নি। পরে সকালে সাজালেরকান্দি রাস্তার পাশে তার লাশ দেখতে পান।

এ দিকে ঘটনাস্থলে পুলিশ উপস্থিত হলে গ্রামবাসী হত্যার সঙ্গে দেলোয়ার জড়িত স্লোগানে বিক্ষোভ করেন। পরে দেলোয়ার হোসেনকে মারধর করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন।
সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত দাবি করে স্থানীয়রা ইউপি সদস্যকে পুলিশে সোপর্দ করেছে। বিষয়টির তদন্ত চলছে।

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ