Shahnewaz Zillu - (Coxsbazar)
প্রকাশ ১১/১২/২০২১ ১২:৩১এ এম

Qaumi students: সৈকতের বালুচরে তুলি আর জলরঙ্গে একাকার কওমী শিক্ষার্থীরা

Qaumi students: সৈকতের বালুচরে তুলি আর জলরঙ্গে একাকার কওমী শিক্ষার্থীরা
ad image
কওমী মাদ্রাসা ভিত্তিক দেশের একমাত্র ক্যালিওগ্রাফি চর্চা ও শিল্পী গোষ্ঠী ‌‌‌‌‌‌'শৈল্পিক কওমী'র উদ্যোগে আয়োজিত আউটডোর আর্ট ক্যাম্প বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে শেষ হলো।

১০ ডিসেম্বর (জুমাবার) পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচী অনুযায়ী কক্সবাজার সমুদ্রসৈকতের লাবনী পয়েন্টের ডান পাশের ঝাউবনে দিনব্যাপী উক্ত আর্ট ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়। এতে কক্সবাজার-চট্টগ্রাম থেকে ৮জন সহ সারাদেশ থেকে মোট ৩০জন ক্যালিওগ্রাফি শিল্পী অংশগ্রহণ করে। অনুষ্ঠানটি সকাল ১০টা থেকে শুরু হয়ে বিকেল ৪টা পর্যন্ত স্থায়ী হয়। মাঝখানে ছিলো খাবার গ্রহণ, সমুদ্রস্নান ও প্রার্থনার বিরতি। আর বাকী পুরো সময় জুড়ে ছিলো ক্যালিওগ্রাফি শিল্পীদের ক্যানভাস, জলরঙ আর তুলির আঁচড়ে রঙের ভুবনে ডুবে থাকার মহোৎসব।

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের বিশাল বালুকাময় প্রান্তরে বসে ঝুলে থাকা পশ্চিম আকাশে বন্দী সমুদ্রের গর্জন শুনতে শুনতে অংশগ্রহণকারী শিল্পীদের মধ্যে কেউ এঁকেছেন মহান স্রষ্টার নিরানব্বই নাম, কেউ মহাগ্রন্থ কোরানের বাণী, কেউবা এঁকেছেন প্রিয় হাবীব হযরত মোহাম্মদ (সা.)এর বাণী। আবার কেউ কেউ ক্যালিওগ্রাফির অংকনে ফুটিয়ে তুলেছেন দেশপ্রেম ও দেশের প্রতি মমত্ববোধ।

ক্যাম্পে অংশ নেওয়া ডেলিগেটদের মধ্যে সবচেয়ে ভালো ক্যালিওগ্রাফী অংকনকারী তিনজনকে নির্বাচিত করে পুরস্কৃত করা হয়। প্রথম হন- ঢাকার আতাউর রহমান তামীম, ২য়- ঢাকার আল আমিন মল্লিক এবং ৩য় হন চট্টগ্রামের জুলফিকার।

আয়োজক সংস্থা শৈল্পিক কওমি'র প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক মোল্লা হানীফ জানিয়েছেন- ইসলামী মূল্যবোধ শিল্প চর্চাকে কখনোই নিরুৎসাহিত করে না। বরং ইসলাম প্রাক প্রাথমিক যুগ থেকেই শিষ্টাচারিতা বজায় রেখে মার্জিত ভাবে শিল্প চর্চা করে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় কওমী সহ সর্বস্তরের শিল্প মনস্ক মানুষগুলোর মাঝে ইতিবাচক শিল্প চর্চা তথা ক্যালিওগ্রাফি অংকনের জোয়ার সৃষ্টি করতে আজকের এই আয়োজন। ভবিষ্যতে এধরণের আয়োজন ক্রমান্বয়ে আরও বাড়ানো হবে বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, কওমী শিক্ষার্থীদের ক্যালিওগ্রাফি শিল্পী গোষ্ঠী 'শৈল্পিক কওমী' চলতি বছরের শুরুর দিকে ১৬ জানুয়ারী যাত্রা শুরু করে। এনিয়ে তারা সারাদেশে ৩টি আউটডোর ক্যাম্প করে। কক্সবাজারে সদ্য অনুষ্ঠিত ক্যাম্পটি তাদের তৃতীয় আয়োজন ছিলো। এর আগে ঢাকার দিয়াবাড়ী এবং নারায়নগঞ্জের পানামনগরীতে যথাক্রমে প্রথম ও দ্বিতীয় বারের মতো আউটডোর ক্যাম্প হয়েছিলো বলে জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির সহকারী পরিচালক আহসান হাবীব রাফি।

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ