Md. Sukh Badsha - (Kurigram)
প্রকাশ ২৭/১১/২০২১ ০৭:২৬এ এম

Kurigram: পারিবারিক কলহের জেরে রৌমারীতে আহত-২, থানায় অভিযোগ!

Kurigram: পারিবারিক কলহের জেরে রৌমারীতে আহত-২, থানায় অভিযোগ!
ad image
কুড়িগ্রামের রৌমারীতে পারিবারিক ঘটনাকে কেন্দ্র করে শ্বশুর বাড়ির লোকজন জামাই বাড়িতে এসে বেধরক মারপিটের ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাটি গত বুধবার (২৪ নভেম্বর) সকাল ১১ টার দিকে উপজেলার যাদুরচর ইউনিয়নের বকবান্দা নামা পাড়া গ্রামের। দাম্পত্য জীবনের পারিবারিক ও বাড়ির কাজ করাকে কেন্দ্র করে। আহত ব্যক্তি মমতাজ বেগম (৪৫) ও শান্তা খাতুন (২৪) উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে।

অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, বকবান্দা নামাপাড়া গ্রামের মানিক শেখের ছেলে দুলাল হোসেনের মেয়ে খাদিজা খাতুন (১৮) এর সাথে দীর্ঘ ৯ মাস আগে একই গ্রামের নাজিমুদ্দিনের ছেলে মাসুদ (২২)এর সাথে বিবাহ বন্ধন হয়। বিবাহের শুরু থেকে দাম্পত্য জীবন মোটা মোটি ভাবে ভালই চলে আসছিল। স্বামী স্ত্রীর মধ্যে দন্দের কোন কিছুই না ঘটলেও বাড়ির কাজ কর্মে অনিহা শৈথিল্যের জন্য শাশুড়ী বউকে কাজের বিষয়ে অনুশাসনে বিরক্ত প্রকাশ করলে বউ ঘটনাটি তার বাবার বাড়িতে জানালে গত ২০ নভেম্বর দুপুরের দিকে বাড়িতে না জানিয়ে খাদিজার পিতা ও চাচা রাগাম্বিত ও অতর্কিত কায়দায় বাড়ি হতে খাদিজাকে নিয়ে যায়। পরে নানা বিধ হুমকি ধামকি ও প্রাণনাশের ভয়ভীতি দেখায়।

এরই জের ধরে গত বুধবার সকাল ১১ ঘটিকায় ওই পারিবারিক ঘটনাকে কেন্দ্র করে খাদিজার পিতা দুলাল হোসেন (৪২) ও দাদা লিয়াকত হোসেন (৫০) নাজিম উদ্দিনের বাড়ির অভ্যন্তরে প্রত্যেকে লাঠিশোঠায় সজ্জিত হইয়া অপরাধ জনক অবৈধ ভাবে আসিয়া অতর্কিত ভাবে এলোপাথারী পিটুনীর মধ্যে হত্যার লক্ষে সজরে পিটুনী দিলে মমতাজ বেগমের হাত ভেঙ্গে যায় এবং মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। পরে তাদের আত্মচিৎকারে আশপাশের লোকজন ঘটনা স্থল থেকে তাদের উদ্ধার করে রৌমারী হাসপাতালে ভর্তি করান। বর্তমানে আহত ব্যাক্তিরা চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন।

কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাক্তার শুভ বলেন, আহত ব্যাক্তিদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তবে একজন গৃহীনির মাথায় প্রচন্ড আঘাতে গুরুতর অবস্থায় আছেন। হয়তো উন্নত চিকিৎসার জন্য বাইরে নিয়ে যাওয়ার প্রয়োজন হতে পারে।

অভিযোগকারী মাসুদ বলেন, খাদিজার সাথে বিবাহ বন্ধন থেকে বর্তমান পর্যন্ত আমার সাথে কোন কলহ ছিলনা। তবে পারিবারিক কাজের কথা নিয়ে মায়ের সাথে অনুশাসনের ঘটনায় এ ঘটনাটি ঘটিয়েছে খাদিজার পিতা দুলাল। এ ঘটনায় এলাকার মাতাব্বরদের আদেশে একটি পারিবারিক সমঝোতার কথায় থানায় অভিযোগ দিতে বিলম্ব হয়েছে।

অফিসার ইনচার্জ মোন্তাছের বিল্লাহ বলেন, অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত সাপেক্ষে আইনত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ