Md. Omar Faruk( - (Bogura))
প্রকাশ ১৯/১১/২০২১ ০৮:০২এ এম
বগুড়ায় অক্সিজেনের অভাবে চিকিৎসা অবহেলায় শহরের বেসরকারি রেইনবো কমিউনিটি এ্যান্ড ডায়াগনস্টিক হাসপাতালে ৪ দিন বয়সী এক কন্যা নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে।

শুক্রবার দুপুর ১টার দিকে হাসপাতালের তৃতীয় তলার বেবি কেয়ার ইউনিটে এ ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী পরিবারটি জেলার সারিয়াকান্দি উপজেলার চন্দনবাইশা ঘুঘুমাড়ি গ্রামের বাসিন্দা।

মৃত নবজাতকের বাবা বিজিবি সদস্য সোহেল রানা জানান, ‘বুধবার (১৭ নভেম্বর) রাতে আমার নবজাতক কন্যা শিশুকে ফুসফুসের সমস্যা নিয়ে রেইনবো হাসপাতালের ডা. এ.কে বসাকের তত্বাবধানে ভর্তি করিয়ে দেই৷ এর আগে মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) শেরপুর উপজেলার বেসরকারি একটি ক্লিনিকে আমার স্ত্রী শান্তি আক্তার কন্যা নবজাতকের জন্ম দেয়। জন্মের পরে শিশুটির ফুসফুসে সমস্যা দেখা দেয়। পরে তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে সেখানে বাচ্চাদের নিবিড় পর্যবেক্ষন কেন্দ্র না থাকায় তাকে (নবজাতক) রেইনবো কমিউনিটি এ্যান্ড ডায়াগনেস্টিকে ভর্তি করা হয়।’

তিনি আরও জানান, বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) রাতে ঐ নবজাতকের অক্সিজেন হঠাৎ নেমে আসলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ দীর্ঘক্ষণ পর আবারও তা সরবারহ শুরু করেন। এবং পুনুরায় এমন হবেনা বলে মৌখিক অঙ্গিকারও করেন৷ শুক্রবার দুপুর ১টার দিকে তার অক্সিজেন দেওয়া অবস্থায় স্বাভাবিক প্রঃশ্বাস চালু ছিল। তবে হঠাৎ গতরাতের মতো আবারও অক্সিজেন শেষ হয়ে গেলে পরিবারের পক্ষ থেকে বারবার কর্ত্যবরত নার্স ও স্টাফদের কাছে অক্সিজেন চাওয়া হয়। তারা গড়িমসি করে প্রায় পনে ১ঘন্টা পর অক্সিজেন দিতে আসলে দেখেন তাদের মেয়ে মারা গেছে।

হাসপাতালটির ম্যানেজার রুপক হাসান অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন। অক্সিজেনের পর্যাপ্ত মজুদ ছিল। বাচ্চাটা ফুসফুসের সমস্যাতে মারা গেছেন৷

বনানি পুলিশ ফাঁড়ির (উপ-পরিদর্শক) সাজ্জাদুর রহমান জানান, ৯৯৯ এ কল পেয়ে আমরা এসেছি। ভুক্তভোগী পরিবারকে লিখিত অভিযোগ করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। উনারা অভিযোগ করলে আমরা আইনগত ব্যবস্থা নেব৷

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ