Md. Asir Uddin
প্রকাশ ১৫/১১/২০২১ ০৭:৪৩এ এম
“লিখতে লিখতে লেখিয়ে” শ্লোগানকে সামনে রেখে নওগাঁর পত্নীতলায় লেখালেখি বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৪ নভেম্বর ২০২১ জেলা পরিষদ ডাকবাংলো মিলনায়তনে বেসরকারি স্বেচ্ছাব্রতি সংস্থা দি হাঙ্গার প্রজেক্টের আয়োজনে দিনব্যাপি কর্মশালাটি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

৬জন তরুণী এবং ১৪জন তরুণের অংশগ্রহণে কর্মশালায় সহায়ক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পিওর আর্থের কমিউনিশেন লিড মিতালী দাশ। এসময় দি হাঙ্গার প্রজেক্টের আঞ্চলিক সমন্বয়কারী মিজানুর রহমান, এলাকা সমন্বয়কারী আসির উদ্দীন উপস্থিত ছিলেন।

কর্মশালায় অংশগ্রহণ করে নিজেদের সামর্থ্যের বিকাশ ঘটেছে এবং দৃষ্টিশক্তি সঠিক স্থান ও ব্যক্তির প্রতি নিবন্ধের সুবিধা হবে বলে অংশগ্রহণকারীরা মনে করে। কর্মশালার অংশগ্রহণকারী পত্নীতলা উপজেলা যুব ফোরামের সাধারণ সম্পাদক শাহরিয়ার শাকিল বলেন “আমরা আজকে নিজেদের নতুনভাবে আবিষ্কার করলাম। ঘটনা এবং সফলতা তুলে ধরার সুযোগ আমাদের আছে। আমরা মূলধারার মিডিয়ার বাইরেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কীভাবে কোন ঘটনা বা সফলতা তুলে ধরতে হবে তার সূত্র শিখলাম। এলাকার ইতিবাচক পরিবর্তন আমরা বলিষ্ঠভাবে মিডিয়ায় তুলে ধরবো।”

আদিবাসি শিক্ষার্থী ইলিমা সরেন বলেন “আমরা নানান চ্যালেঞ্জের মধ্যদিয়ে জীবনযাপন করে আসছি। আমাদের কথা কেউ ইতিবাচকভাবে তুলে ধরে না। সমোজে আদিবাসিদের সম্পর্কে নেতিবাচক অনেক ধারণা প্রচলিত আছে। আমি দায়িত্ব নিয়েছি সমাজের সকল প্রতিবন্ধকতা তুলে ধরে নিরব সংস্কারকের ভমিকা পালন করবো।”

কর্মশালার আয়োজক দি হাঙ্গার প্রজেক্টের আঞ্চলিক সমন্বয়কারী মিজানুর রহমানও অংশগ্রহণকারীদের সাথে সুর মিলিয়ে নিজেদের সক্ষমতা এবং সামাজিক দায়বন্ধতার কথা তুলে ধরেন।

কর্মশালার সহায়ক মিতালী দাশ বলেন “কেউ কাউকে পরিবর্তন করতে পারে না। আমরা নিজেদের পরিবর্তন করতে পারলে সমাজের পরিবর্তন অবশ্যম্ভাবী। মিডিয়াকে ব্যবহার করে এ পরিবর্তন ঘটানো খুব সহজ। আপনাদের যে উদ্যম এবং অঙ্গিকার তা বাস্তবায়িত হলে আমাদের শ্রম স্বার্থক হবে।”

দি হাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশ কর্তৃক প্রশিক্ষিত ইউনিয়ন সমন্বয়কারী এবং ফ্যাসিলিটেটরদের নিয়ে কর্মশালার মধ্যদিয়ে সফলতার গল্প, বিভিন্ন ইতিবাচক পরিবর্তনের ঘটনা এবং সামাজিক উদ্যোগ মূলধারার গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তুলে ধরার আকাংখা নিয়ে এ কর্মশালাটি অনুষ্ঠিত হয়। দি হাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশ তৃণমূলে নাগরিকদের সংগঠিত ও ক্ষমতায়িতকরণের মাধ্যমে স্থানীয় সুশাসন নিশ্চিত করে টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট অর্জনে কাজ করছে।

সম্প্রতি পরিবেশ সুরক্ষায় পিওর আর্থের সাথে অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে চারকোল উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ প্রশিক্ষণ এবং স্টার্ট আপ হিসেবে ৮জন উদ্যোগে আর্থিক সহায়তাও প্রদান করা হয়েছে। কর্মশালার অংশগ্রহণকারীরা সফলতা তুলে ধরার মধ্যদিয়ে অসংখ্য মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে বলে সংগঠন দুটি মনে করে।

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ