সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১
rafiqul islam - (Shariatpur)
প্রকাশ ১৩/১১/২০২১ ০৬:০১পি এম

Shariatpur: শরীয়তপুরে নৌকার পরাজিত ৫ প্রার্থীর সংবাদ সম্মেলন

Shariatpur: শরীয়তপুরে নৌকার পরাজিত ৫ প্রার্থীর সংবাদ সম্মেলন
শরীয়তপুর সদর উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা মার্কার পরাজিত ৫ প্রার্থী তাদের পরাজয়ের কারণ সম্পর্কে আজ শরীয়তপুর জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয় এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন।

এতে তারা আওয়ামী লীগের দলীয় নেতাকর্মীদের নৌকার বিরুদ্ধে অবস্থান এবং প্রশাসনের নৌকার বিরুদ্ধাচরণকে তাদের পরাজয়ের প্রধান কারণ বলে উল্লেখ করেন। এছাড়া নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতায় দলীয় নেতাকর্মীদের ক্ষয়ক্ষতির বিষয় গণমাধ্যমের কাছে তুলে ধরেন।

সংবাদ সম্মেলনে আংগারিয়া ইউপি নির্বাচনের নৌকার প্রার্থী আসমা আক্তার অভিযোগ করেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কয়েকজন তৃণমূল নেতৃবৃন্দের ছাড়া আওয়ামী লীগের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ নৌকার বিরুদ্ধে অবস্থান নেন।

আংগারিয়া ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের নৌকার পরাজয়ের মূল কারণ হিসেবে আসমা আক্তার বলেন, সাবেক জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক পৌর মেয়র আব্দুর রব মুন্সি সহ আওয়ামী লীগের একাংশের নেতাকর্মীদের নির্বাচনের ৩ দিন আগে নৌকার বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়াকে তুলে ধরেন।

এছাড়া তিনি বলেন, নির্বাচনের দিন পুলিশ-প্রশাসনের নৌকার বিরুদ্ধে অবস্থান গ্রহণের ফলে নৌকার পরাজয় ত্বরান্বিত হয়েছে।

ডোমসার ইউনিয়নের নৌকার পরাজিত প্রার্থী মিজান খান বলেন,শরীয়তপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন অপুর সুনাম ক্ষুন্ন করার জন্য বর্তমান মেয়র পারভেজ রহমান জন ও সাবেক মেয়র রফিকুল ইসলাম কোতোয়ালের অপচেষ্টার কারণে নৌকার পরাজয় হয়।

পালং ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের নৌকা মার্কার পরাজিত প্রার্থী আবুল হোসেন দেওয়ান, মাহমুদপুর ইউনিয়ন এর আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শাহ আলম মুন্সি ও শোলপাড়া ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আলমগীর হোসেন পরাজয়ের কারণ হিসেবে জেলা, উপজেলা ও স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের নৌকার প্রার্থীদের বিরুদ্ধাচরণকে মূল কারণ হিসেবে তুলে ধরেন। সেই সাথে সকলেই তাদের পরাজয়ের পেছনে পুলিশ প্রশাসনকে নৌকার বিরুদ্ধে অবস্থান কে তুলে ধরেন।

এ সময় নৌকার পরাজিত ৫ প্রার্থীদের সকলেই নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা বন্ধের জন্য পুলিশ প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট অন্যান্যদের কাছে অনুরোধ জানান।

নৌকার প্রার্থীদের অভিযোগের বিষয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা মোল্লার কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা নৌকার পরাজিত প্রার্থীদের অভিযোগ ইতিমধ্যেই শুনেছি। নির্বাচনের পূর্বে যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছিল ইতিমধ্যে তাদেরকে দলীয় পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। পরবর্তীতে যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে তাদের বিরুদ্ধে ইউনিয়ন, উপজেলা ও জেলা আওয়ামী লীগের শৃঙ্খলা কমিটির ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ