বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১
Riyazul Islam - (Jashore)
প্রকাশ ০৫/১০/২০২১ ০৬:৫২এ এম

যশোরে এহসান সংস্থার চেয়ারম্যানসহ ২৩ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা

যশোরে এহসান সংস্থার চেয়ারম্যানসহ ২৩ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা
যশোরে গ্রাহকদের ৩৮ লাখ ৬৫ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগে এহসান সংস্থার চেয়ারম্যান মুফতি তাহের নদভীসহ ২৩ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে রোববার আদালতে ৬টি মামলা হয়েছে।

ভুক্তভোগী ৫ জন গ্রাহক এই মামলা করেন। অতিরিক্ত চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মারুফ আহমেদ অভিযোগগুলি আমলে নিয়ে আসামিদের প্রতি সমন ইস্যুর আদেশ দিয়েছেন।

মামলার বাদী ও ভুক্তভোগী গ্রাহকরা হলেন, যশোর সদর উপজেলার ভাতুড়িয়া গ্রামের সাদেক আলীর স্ত্রী মনজিলা বেগম, বালিয়া ভেকুটিয়া গ্রামের তাইজুল ইসলামের ছেলে মকছেদ আলী,চাঁচড়ার আব্দুল গফুর মোল্যার ছেলে মাসুদুর রহমান, শহরের শংকরপুর আশ্রম রোডের মৃত সেখ আমিন উল্লাহর ছেলে সেখ রহমত উল্লাহ ও তার স্ত্রী আফরোজা বানু।

এর মধ্যে মাসুদর রহমান সাড়ে ৬ লাখ টাকা, মনজিলা বেগম ৮ লাখ ৮০ হাজার টাকা, মকছেদ আলী ৬ লাখ ২শ’, সেখ রহমত উল্লাহ ৫ লাখ ৩০ হাজার টাকা এবং আফরোজা বানু ১টি মামলায় ৯ লাখ ৬৫ হাজার টাকা ও আরেকটি মামলায় ২ লাখ ৪০ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগ করেছেন।

মামলার বাদীরা আসামিদের বিরুদ্ধে লগ্নিকৃত অর্থের দ্বিগুণ ফেরত দেওয়ার মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়ে প্রতারণার মাধ্যমে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ এনেছেন।২০১২ সাল থেকে ২০১৪ সালের বিভিন্ন সময় যশোরে এহসান রিয়েল এস্টেট অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট লিমিটেড অফিসে লগ্নিকারীদের কাছ থেকে অর্থ গ্রহণ করা হয় বলে অভিযোগে বলা হয়েছে।

মামলার আসামিরা হলেন, চেয়ারম্যান চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলার নিশ্চিন্তপুর গ্রামের বাসিন্দা মুফতি আবু তাহের নদভী, প্রধান নির্বাহী ব্যবস্থাপক মাগুরা সদর উপজেলার সাজিয়ারা গ্রামের বাসিন্দা কাজী রবিউল ইসলাম, ব্যবস্থাপক মাগুরা সদর উপজেলার শিমুলিয়া গ্রামের বাসিন্দা জুনায়েদ আলী, পরিচালক মাগুরা সদর উপজেলার রাউতলা গ্রামের বাসিন্দা আজিজুর রহমান, পরিচালক কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার লক্ষীধরদিয়াড় গ্রামের বাসিন্দা মঈন উদ্দিন,পরিচালক খুলনার লবনচরা হরিণটানা রিয়াবাজার এলাকার বাসিন্দা মুফতি গোলাম রহমান, পরিচালক গাজীপুরের টঙ্গী উপজেলার চড়মাটিন এলাকার বাসিন্দা আব্দুল মতিন, মহাপরিচালক (প্রশাসন) সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার খুবদিপুর এলাকার বাসিন্দা আমিনুল হক,চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার লিচুবাগান জামালকান রোডের বাসিন্দা কলিমুল্লাহ কলি, পরিচালক খুলনার খানজাহান আলীর শিরোমনি এলাকার বাসিন্দা মিজানুর রহমান, পরিচালক যশোর সদর উপজেলার রামনগর গ্রামের বাসিন্দা মুফতি মো. ইউনুস আহম্মেদ,

পরিচালক খুলনার পাইকগাছা উপজেলার মরল এলাকার বাসিন্দা মনিরুল ইসলাম, পরিচালক মাগুরা সদর উপজেলার শিমুলিয়া গ্রামের বাসিন্দা আইয়ুব আলী, পরিচালক যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার ধান্যপাড়া গ্রামের বাসিন্দা সামসুজ্জামান টিটু,ব্যবস্থাপক (যশোর শাখা) মাগুরা সদর উপজেলার শিমুলিয়া গ্রামের বাসিন্দা আতাউল্লাহ, যশোরের কেশবপুর উপজেলার বেতিখোলা গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল হালিম, মাঠকর্মী যশোর শহরের কারবালা রোডের বাসিন্দা সিরাজুল ইসলাম (সোনামিয়া), উপশহর এ-ব্লক এলাকার বাসিন্দা শামসুর রহমান,সমন্বয়কারী সেক্রেটারি যশোর শহরতলীর শেখহাটি জামরুলতলা এলাকার বাসিন্দা বাবর আলী, একই এলাকার বাসিন্দা আব্দুল হক, শার্শা উপজেলার তেবাড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা এস এম সেলিম উল চৌধুরী,

বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার সুন্দরকাটি গ্রামের বাসিন্দা মোকসেদ আলী ও যশোর সদর উপজেলার রামনগর গ্রামের বাসিন্দা মুফতি ফুরকান আহমেদ।

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত সংবাদ

*PLEASE INSERT THIS PART OF THE TAG TO THE BODY SECTION OF THE PAGE WHERE YOU'D LIKE TO SEE ADS*