Ariful Islam - (Dhaka)
প্রকাশ ১২/০৯/২০২১ ০৮:১০পি এম

আর থাকছে না একাউন্ট হ্যাকের ঝুঁকি, নতুন ফিচার নিয়ে অবশেষে হাজির WhatsApp

আর থাকছে না একাউন্ট হ্যাকের ঝুঁকি, নতুন ফিচার নিয়ে অবশেষে হাজির WhatsApp
ad image
WhatsApp চ্যাট এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশন দ্বারা সুরক্ষিত ছিল ঠিকই। তবুও, সেই সুরক্ষার ফোকল গলে হ্যাকারের হানা দেওয়াটা খুবই একটা সহজ কাজ ছিল। কারণ, চ্যাটে এনক্রিপশন থাকলেও, চ্যাট ব্যাকআপে কোনও এনক্রিপশন ছিল না। সেটাই এবার লঞ্চ করল হোয়াটসঅ্যাপ।

ব্যক্তিগত চ্যাট আরও সুরক্ষিত করার নতুন ফিচার নিয়ে অবশেষে হাজির হল WhatsApp। কোম্পানির তরফ থেকে ঘোষণা করা হয়েছে, এবার থেকে WhatsApp চ্যাট ব্যাকআপেও ব্যবহৃত হবে এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশন।

এই ফিচার WhatsApp-এর সুরক্ষাকে আরও শক্তিশালী করবে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। Google Drive ও iCloud-এ যে WhatsApp চ্যাট ব্যাকআপ সেভ হয়, তা এবার থেকে এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশনের মাধ্যমে সুরক্ষিত থাকবে।

WhatsApp এর নতুন সিকিউরিটি কি ফিচার কী?

WhatsApp-এর সব চ্যাট এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশনের মাধ্যমে সুরক্ষিত থাকে। এর ফলে শুধুমাত্র চ্যাটের প্রেরক ও প্রাপক ছাড়া তৃতীয় কোনও ব্যক্তি এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশন WhatsApp এর কোনও মেসেজ পড়তে পারেন না।

যদিও, Google Drive অথবা iCloud-এ যে নিয়মিত চ্যাটের যে ব্যাকআপ সেভ করে থাকেন গ্রাহকরা, সেই ব্যাকআপ এতদিন সুরক্ষিত ছিল না। ফলে, কোনও ভাবে সেই ব্যাকআপ হাতিয়ে নিতে পারলেই আপনার সব চ্যাটের তথ্য অন্য কোনও ব্যক্তির কাছে পৌঁছে যেত। এবার এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশনের মাধ্যমে চ্যাট ব্যাকআপকেও সুরক্ষিত করছে WhatsApp।

Google Drive ও iCloud-এ কী ভাবে সুরক্ষিত থাকবে WhatsApp চ্যাট ব্যাকআপ?

একটি ব্লগ পোস্টে WhatsApp-এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে , 'ইতিমধ্যেই WhatsApp গ্রাহকরা Google Drive ও iCloud-এর মাধ্যমে WhatsApp চ্যাট ব্যাকআপ নিতে পারেন। এই ব্যাকআপের অ্যাকসেস WhatsApp-এর কাছে থাকে না। কিন্তু, এবার চাইলে গ্রাহকরা এই সার্ভিসগুলি ব্যবহার করে চ্যাট ব্যাকআপেও এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশন ব্যবহার করতে পারবেন। এই ব্যাকআপের কি WhatsApp অথবা ব্যাকআপ সার্ভিসের কাছে থাকবে না। ফলে শুধু মাত্র গ্রাহকই WhatsApp চ্যাট ব্যাকআপ অ্যাকসেস করতে পারবেন।'

এনক্রিপটেড WhatsApp চ্যাট ব্যাকআপ অ্যাকসেস করবেন কী ভাবে?

WhatsApp-এর তরফ থেকে জানানো হয়েছে, অ্যাকাউন্ট মালিকের যখন চ্যাট ব্যাকআপ অ্যাকসেস করার প্রয়োজন হবে, তখন পাসওয়ার্ড অথবা এনক্রিপশন কি ব্যবহার করে তা অ্যাকসেস করা যাবে। পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে চ্যাট রিট্রিভ করার সময় HSM বেসড ব্যাকআপ কি ভল্ট থেকে কি নিয়ে চ্যাট ডিক্রিপ্ট করা হবে।

HSM Key কী? কী ভাবে সুরক্ষিত থাকবে চ্যাট?

WhatsApp চ্যাট রিট্রিভ করার সময় পাসওয়ার্ড ভেরিফিকেশন করতে HSM Key ব্যবহৃত হবে। কোনও গ্রাহক যখন পাসওয়ার্ডের মাধ্যমে WhatsApp চ্যাট সুরক্ষিত করার চেষ্টা করবেন, তখন এই কি একটি ব্যাক-আপ কি ভল্টে স্টোর হবে। হার্ডওয়্যার সিকিউরিটি মডিউল (HSM) কম্পোনেন্টে এই কি স্টোর হবে। যখন অ্যাকাউন্ট মালিকের চ্যাট ব্যাকআপ অ্যাকসেস করার প্রয়োজন হবে, তখন পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে HSM ব্যাকআপ কি রিস্টোর করা যাবে। কিন্তু, কয়েকবার ভুল পাসওয়ার্ড দিলেই আর HSM ব্যাকআপ কি অ্যাকসেস করা যাবে না এবং তা পাকাপাকিভাবে ব্লকও হয়ে যাবে।

চ্যাট ব্যাকআপ কী ভাবে সুরক্ষিত থাকবে?

64-bit এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশনের মাধ্যমে সুরক্ষিত থাকবে WhatsApp চ্যাট ব্যাকআপ। চাইলে পাসওয়ার্ডের মাধ্যমেও WhatsApp চ্যাট ব্যাকআপ সুরক্ষিত রাখতে পারবেন গ্রাহকরা। সেই ক্ষেত্রে আপনার চ্যাট ব্যাকআপের এনক্রিপশন কি HSM ব্যাকআপ কি ভল্টে স্টোর থাকবে।

কতটা ভরসা যোগ্য এই ব্যাকআপ পদ্ধতি?

WhatsApp-এর তরফ থেকে জানানো হয়েছে, ব্যাকআপের জন্য ব্যবহৃত HSM ব্যাকআপ কি বিশ্বের বিভিন্ন ডেটা সেন্টারে স্টোর থাকবে। একটি সেন্টারে কোনও সমস্যা হলে অন্য ডেটা সেন্টার থেকে এই তথ্য পেয়ে যাবে WhatsApp।

চ্যাট ব্যাকআপ রিস্টোর করবেন কী ভাবে?

তার জন্য আপনাকে কয়েকটি ধাপ অনুসরণ করতে হবে:-

* পাসওয়ার্ডের মাধ্যমে চ্যাট ব্যাকআপ সিকিওর করা যাবে, সে ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হবে HSM কি ভল্ট।
* পাসওয়ার্ড ভেরিফিকেশনের পরে তা একটি HSM কি ভল্ট গ্রাহককে একটি কি পাঠাবে।
* এই কি ব্যবহার করে চ্যাট ব্যাকআপ ডিক্রিপ্ট করা যাবে।
* এছাড়াও চাইলে 64 ডিজিট কি ব্যবহার করেই রিট্রিভ করা যাবে চ্যাট ব্যাকআপ।

কেন গুরুত্বপূর্ণ এই ফিচার?

এতদিন WhatsApp চ্যাটে এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশন থাকলেও ব্যাকআপে কোনও এনক্রিপশন ছিল না। এর ফলে সহজেই চ্যাট ব্যাকআপ থেকে হ্যাকাররা ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নিত। এবার চ্যাট ব্যাকআপেও এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশন যুক্ত হওয়ার কারণে আরও সুরক্ষিত হল WhatsApp ব্যবহার।

শেয়ার করুন

ad image

সম্পর্কিত সংবাদ